E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

দুরারোগ্য রোগে প্রতিবন্ধী হয়ে যাচ্ছেন উৎপল সরকার

২০২৪ জুন ২৯ ১৩:১৬:৪৪
দুরারোগ্য রোগে প্রতিবন্ধী হয়ে যাচ্ছেন উৎপল সরকার

একে আজাদ, রাজবাড়ী : রাজবাড়ী জেলার কালুখালী উপজেলার উপকণ্ঠে কালিকাপুর গ্রামের কবি উৎপল সরকার কালিকাপুর গ্রামে ০৫/০৬/১৯৯২ সালে এক দরিদ্র পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা উত্তম সরকার যিনি পেশায় একজন (কাঠের কারিগর) মাতা শান্তনা রানী সরকার। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনি সবার বড়। পড়ালেখার শুরু হয় নিজ গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। লেখাপড়ার সময় মেধার পরিচয় পাওয়া যায়।

৯-১০ বছর বয়স হতেই দুরারোগ্য রোগে এক রূপ বিকলাঙ্গ হয়ে পড়ে। আজও পূর্ণ নিরাময় হয়নি। প্রচন্ড দারিদ্রতা ও শারীরিক অসুস্থ অবস্থায় তিনি রাজবাড়ী সরকারি কলেজ থেকে ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্যে স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেন।

শিশুকাল থেকেই তার কাব্য প্রতিভার বিকাশ ঘটে। পান্থপিদিম সাংস্কৃতিক সংগঠনের পৃষ্ঠপোষকতায় কিশোর বয়সে" প্রদীপ রাজি" ও "সত্যের ডাক" নামে তার দুইটি কবিতা পত্র প্রকাশিত হয়। অধ্যাপক মুন্সি আকবর আলীর সম্পাদনায় যৌথ কাব্যগ্রন্থ কবিতা মঞ্জুরী তে কবি উৎপল সরকারের কবিতা স্থান পায় ও তার সম্পাদনায় সাহিত্য মজলিস মাসিক সাহিত্য পত্রিকায় কবি নিয়মিত কবিতা লিখতেন।

এছাড়াও পাংশা বার্তা, উল্টো পথ, মুক্ত বিহঙ্গ,কাশফুল ইত্যাদি পত্র পত্রপত্রিকায় তার নিয়মিত লেখা ছাপা হতো। বর্তমানে তিনি পাংশা একটা ভাড়া বাড়িতে বাবা মায়ের সাথে বসবাস করেন। পেশা হিসেবে পাংশা শহরের কোমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের ইংরেজি শিক্ষাদান করছেন। বাংলাদেশ প্রকৌশলী বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ, কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ও পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় সহ তার অসংখ্য শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করছে।

তিনি এই শিক্ষাদানের পাশাপাশি রাজবাড়ী জেলাধীন পাংশা থানা শহরে নিজ উদ্যোগে তরুণদের নিয়ে বহুবচন ও বোহেমিয়ান নামক দুটি থিয়েটার প্রতিষ্ঠা করেন। শিল্প সাহিত্য চর্চার পাশাপাশি তিনি পাংশা উপজেলা প্রেসক্লাবের সক্রিয় একজন সদস্য। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে তার বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে তার হাত-পা আরো বেশি বাঁকা হচ্ছে।

ফলপ্রসূত তাকে একটি কক্ষের মধ্যে নিঃসঙ্গ জীবন কাটাতে হচ্ছে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে সুস্থ জীবনে ফিরিয়ে আনতে তার উন্নতর চিকিৎসার প্রয়োজন। বারী-ইলিজারভ অর্থোপেডিক সেন্টারে কবিকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয় এবং উক্ত প্রতিষ্ঠানের চিকিৎসকেরা মনে করেন সার্জারি করে তাকে সুস্থ করা সম্ভব হবে এবং এতে ব্যয় হবে প্রায় ১২ লক্ষ টাকা। এত টাকা তার এবং তার দরিদ্র পিতার পক্ষে বহন করা অসম্ভব। তাই এই উদীয়মান কবি কে দেশ ও জাতির স্বার্থে সুস্থ করে তুলতে কবি ও তার পরিবার এবং এলাকাবাসী দেশের বিবেকবান মানুষের সাহায্য কামনা করে। সোনালী ব্যাংক একাউন্ট নং : 2210301011439, বিকাশ নং : 01710855495, নগদ নং : 01710855495।
(একে/এএস/জুন ২৯, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৫ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test