E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

টাঙ্গাইল-৭ উপনির্বাচন : আত্মবিশ্বাসী আ.লীগ, শঙ্কায় জাপা

২০২২ জানুয়ারি ১৫ ১৮:০৯:০৯
টাঙ্গাইল-৭ উপনির্বাচন : আত্মবিশ্বাসী আ.লীগ, শঙ্কায় জাপা

মোঃ সিরাজ আল মাসুদ, টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের উপনির্বাচনে ভোটগ্রহণ রবিবার (১৬ জানুয়ারি)। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ চলবে। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় পার্টির (জাপা) দলীয় প্রার্থীসহ পাঁচ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

টানা চারবার দখলে রাখা আসনটি ধরে রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছে আওয়ামী লীগ। নির্বাচনে জয়ী হওয়ার বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী নৌকার প্রার্থী খান আহমেদ শুভ বলেন, বিজয় নিয়ে প্রয়াত এমপি একাব্বর হোসেনের অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে চাই। এই আসনের প্রয়াত টানা চারচারবারের সাংসদের জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে ও দেশের চলমান উন্নয়নের সাথে মির্জাপুরকে সম্পৃক্ত করতে আগামী দিনগুলোতে কাজ করতে চাই। জননেত্রী শেখ হাসিনা তরুণদের সবক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দিয়ে সুন্দর জাতি গঠনের চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তিনি আমাকে এই আসনে নৌকা প্রতীক দিয়ে মির্জাপুরবাসীর সেবা করতে পাঠিয়েছেন। আর মির্জাপুরবাসী আমাকে সাদরে গ্রহণ করেছে। আমি যদি নির্বাচিত হতে পারি তাহলে মির্জাপুরের মাটি হতে মাদক,সন্ত্রাস ও দূর্নীতি মুক্ত করবো। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে তরুণদের নিয়ে কাজ করবো। এ নির্বাচনে আপনারা বিপুল ভোটে নৌকা প্রতীক কে বিজয়ী করবেন আশা করছি।

অপরদিকে, বিএনপি মাঠে না থাকায় জাতীয় পার্টি আসনটি দখলে নিতে মাঠে সরব। সুষ্ঠুভোট হবে কি না এ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন জাতীয় পার্টির জহিরুল ইসলাম জহির।

তিনি বলেন, সুষ্ঠুভোট নিয়ে শঙ্কায় আছি। আ'লীগের প্রতি মানুষের অনাস্থা। তাদের নির্যাতন, জুলুম ও অত্যাচারের কারনে জনগণ এখন জাতীয় পার্টিকেই ক্ষমতায় দেখতে চায়।ইতিমধ্যে মির্জাপুরে জাতীয় পার্টির গণজোয়ারের সৃষ্টি হয়েছে। আশা করছি নির্বাচনে আমাদের জয় হবে ইনশাল্লাহ। নির্বাচন কমিশনের সুদৃষ্টি কামনা করি ও সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন আহ্বান করছি।সাধারণ ভোটাররা আমার সঙ্গে রয়েছেন। নির্বাচনি প্রচারণায় নেমে সাধারণ ভোটারদের ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। ভোট সুষ্ঠু হলে আমিই জয়ী হবো।

এদিকে নির্বাচনে অংশ নেওয়া অন্যান্য প্রার্থীরাও জয়ের বিষয়ে আশাবাদী।

টাঙ্গাইল-৭ আসনে সংসদ সদস্য পদে পাঁচ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন—আওয়ামী লীগ মনোনীত খান আহমেদ শুভ (নৌকা), জাতীয় পার্টি মনোনীত মো. জহিরুল ইসলাম জহির (লাঙল), বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির গোলাম নওজব চৌধুরী (হাতুড়ি), বাংলাদেশ কংগ্রেস পার্টির শ্রীমতি রুপা রায় চৌধুরী (ডাব) ও স্বতন্ত্র জাপার সাবেক নেতা নুরুল ইসলাম (মোটরযান)।

আসনটি টানা চারবার দখলে ছিল আওয়ামী লীগের। সংসদ সদস্য একাব্বর হোসেনের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হয়। এর আগে চারবার বিএনপি ও দুই বার জাতীয় পার্টি।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এইচ এম কামরুল হাসান বলেন, এই আসনে ১২১টি কেন্দ্রে ইভিএমে ভোটগ্রহণ হবে। আমরা ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ করেছি। আশা করছি, শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন শেষ করতে পারবো।

(এসএম/এসপি/জানুয়ারি ১৫, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

২৬ মে ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test