E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

কেন্দুয়া উপজেলা আ. লীগের পূর্নাঙ্গ কমিটির অনুমোদন পেতেই ১১ মাস

২০২০ অক্টোবর ২৭ ১৬:৪১:৩১
কেন্দুয়া উপজেলা আ. লীগের পূর্নাঙ্গ কমিটির অনুমোদন পেতেই ১১ মাস

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) : বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দুয়া উপজেলা শাখার পূর্নাঙ্গ কমিটির অনুমোদন পেতেই লাগলো ১১ মাস। দীর্ঘ ১৭ বছর পর ২০১৯ সালের ৩০ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয় উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন। সম্মেলনে কাউন্সিলরদের গোপন ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হন এডভোকেট আব্দুল কাদির ভূঞা এবং সাধারন সম্পাদক সাবেক ছাত্র নেতা পৌর মেয়র মোঃ আসাদুল হক ভূঞা। 

তারা দুজন মিলে সম্মেলনের পর আওয়ামীলীগকে নিয়ে আগামী দিনগুলোতে ঘুরে দাড়ানোর লক্ষ্যে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করে নেত্রকোণা জেলা কমিটিতে জমা দেন। গঠিত এই কমিটির অনেক পদ পদবী পরিবর্তনের দাবীতে সাবেক কমিটির নেতৃবৃন্দ নানান কথাবার্তা তুলে আসলেও অবশেষে সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে সোমবার অনুমোদন পেল ৭১ সদস্যের নতুন কমিটি।

নব নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক পৌর মেয়র মোঃ আসাদুল হক ভূঞা বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক নেত্রকোণা-৩ আসনের এমপি অসীম কুমার উকিলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় গত বছরের ৩০ নভেম্বর জাকজমকপূর্ণ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের পর সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক মিলে ৭১ সদস্যের পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠন করে যে কমিটি জেলা শাখায় জমা দিয়েছিলাম সেই কমিটিই অনুমোদন পেয়েছি।

তিনি বলেন, আগামী দিনে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে নতুন উদ্যমে নতুন ভাবে দলকে সাজাতে চাই। তবে দীর্ঘ ১৭ বছর পর সম্মেলন হওয়ায় দলীয় নেতাদের একটা জট লেগেছে। তাই কমিটিতে সকলকে স্থান দেওয়াও সম্ভব হয়নি। তিনি আগামী দিনে দলীয় কর্মকান্ডে সকলের আন্তরিক সহযোগিতা চান।

নেত্রকোণা-৩ আসনের এমপি অসীম কুমার উকিল বলেন, ঝিমিয়েপড়া দলীয় কর্মকান্ডকে চাঙ্গা করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবান জানান। তিনি বলেন, যথা নিয়মে যথা সময়ে তৃণমূলের সব কমিটির সম্মেলন হওয়া দরকার। সঠিক সময়ে সম্মেলন হলে মাঠ পর্যায়ে নেতাকর্মীরা যেমন চাঙ্গা হয়, নেতৃত্ব পরিবর্তনেও প্রতিযোগীতার সৃষ্টি হয়। তিনি সকল নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, নৌকা আওয়ামীলীগের, বঙ্গবন্ধুর, শেখ হাসিনার এবং মুক্তিযুদ্ধ ও উন্নয়নের প্রতীক। আগামী দিনে এই নৌকা মার্কার বিজয়ে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। গড়তে হবে সজীব ওয়াজেদ জয় ও সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের ডিজিটাল বাংলাদেশ। তিনি সব ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে সকলকে আওয়ামীলীগের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

(এসবি/এসপি/অক্টোবর ২৭, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

৩০ নভেম্বর ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test